অতিরিক্ত লবণ রক্তে পানির পরিমাণ বাড়িয়ে দেয় এতে হৃৎপিণ্ড বেশি কাজ করতে হয়, রক্তচাপ বেড়ে যায়। তাই বলা যায়, হ্যা রক্ত পাতলা হয়।

অতিরিক্ত লবণ গ্রহণ করলে হৃদরোগের পাশাপশি কিডনি রোগ, হাইপারটেনশন, অস্টিওপেরিওসিস ইত্যাদি হয়। কম নিলেও সমস্যা, দুর্বলতা, ডাইরিয়া, এডিসন ডিজিস ইত্যাদি হতে পারে।

খাবারের স্বাদ প্রদানের পাশাপশি লবণ অনেক সময় প্রিজার্ভটিভ হিসেবেও কাজ করে যেমন আচারে, লবণ ইলিশ এ।