Skip to main content
Barsha Roy
Student
Asked a question 7 months ago

বাংলাদেশে সবচেয়ে কঠিন পেশা কোনটি এবং কেন?

কোথায় আপনি?

এই MSB Ask কমিউনিটিতে আপনি যেকোনো প্রশ্ন করতে পারবেন, উত্তর দিতে পারবেন এবং নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারবেন। তাই নতুন হলে সাইনআপ করুন, আর আগেই থেকেই অ্যাকাউন্ট থাকলে লগিন করুন।  

Habibur Rahman Habib
Head of Support Team at MSB Academy

আমার মতে বাংলাদেশে সবচেয়ে কঠিন এবং কষ্টের পেশা হল কৃষি। কারন শীত এবং গরম দুই সময় কাদার মাঝে ঘুম থেকে উঠেই কাদার মাঝে কাজ করা কতটা কঠিন এবং কষ্টের সেটা যে করে সেই বুঝে। বীজ তলা থেকে শুরু করে ফসল ঘরে তোলা পর্যন্ত প্রতিটা দিন এবং সময় কঠিন এবং কষ্টের। 

খুব ভাল একটা প্রশ্ন। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপতে সব থেকে কঠিন কাজ হল রিকসা চালানো। যা নিয়ে একবার The daily star এ একটা প্রতিবেদন করা হয়। আর সেখানে বলা হয়  তারা বাংলাদেশের সব থেকে পরিশ্রমী মানুষ। কারণ তারা দিনে দুপুরে কষ্ট করে ভারি একটা বাহন চালাই। তার পরে এদের নিজের ও পরিবারের কোন নিরাপত্তা নাই। এর উপর আবার গরম, পুলিশের যামেলা,  যাত্রীদের খারাপ ব্যাবহার তো আছেই। আমার মতে রিকশাওয়ালাদের জীবন কতটা কঠিনটা বলা লাগে না সবাই জানে। আমাদের সকলের উচিত এদের সন্মান করা। ভাল ভাবে কথা বলা। দেখবেন এদের সাথে একটু মন খুলে কথা বলেই এরা অনেক খুশি হয়। :) 

উল্লেখও রিকশাওয়ালাদের মধ্যে আবার সব থেকে বেশি কষ্ট করে ঢাকার এর রিকশাওয়ালা গুলু।  

বাংলাদেশে কঠিন পেশা ঢাকার মত শহরে ঠেলাগাড়ি চালানো,এই কাজ যারা করে তারা মাসের ৩০দিনে ১০দিন কাজ করতে পারে।এক ঠেলাগাড়ি তে ৫টন মাল লোড করে ১২মাইল দুরের গন্তব্য নিয়ে যেতে হয়।এই কাজে প্রচুর শারিরিক পরিশ্রম হয়,আর ঠেলাগাড়ি তে ৫টন মাল লোড করা সেটাও ঠেলাচালক কে করতে হয়।তবে এত নগদ আয় ,কারো শারিরিক শক্তি ভাল থাকে ১০দিনে ২২হাজার আয় করবে।আরেকটা কঠিন পেশা ম্যনহোলের নোংরা পরিষ্কার করা।

কয়েকটি বিপদজনক ও কঠিন পেশার নাম দেওয়া হল:

১ জাহাজ ভাঙ্গা শিল্প
জাহাজ ভাঙ্গা অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ পেশা , প্রতি বছরই ১০-১৫ জন মানুষ মারা যায় , এই সেক্টরে অল্প ও নিম্নমানের যন্ত্রপাতি দিয়ে জাহাজ কাটে শ্রমিকরা । তাঁরা কোনধরনের তদন্ত বা পরীক্ষা নিরিক্ষা না করেই জাহাজ কাটা শুরু করে । ফলে রাসায়নিক অথবা তেজস্ক্রিয় দূষণে অতিমাত্রায় ভুগছে তাঁরা। অনেকসময় জাহাজের যন্ত্রপাতি বা স্টিল সিট পরে মৃত্যু হয় শ্রমিকদের ।

বাংলাদেশে সবচেয়ে কঠিন পেশা কোনটি এবং কেন?

রাসায়নিক ও প্লাস্টিক কারখানার শ্রম
পুরান ঢাকা এবং দক্ষিন কেরানিগঞ্জে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বহু ক্যামিকেল এবং প্লাস্টিক কারখানা। মজুত করা হয়েছে অনিরাপদ ভাবে , এবং সেখানে কোন নিরাপত্তা ছাড়াই কাজ করেন একদল শ্রমিক । প্রতি বছর গড়ে ৫০-৬০ শ্রমিক এর বেশি মৃত্যু হয় আগুন লেগে । কখনো কখনো আরো বেশি ।চুরিহাট্টা , নিমতলী অগ্নিকান্ড সহ অনেক বড় বড় দুর্ঘটনা হয়েছে ।

 

কৃষি
 কৃষক লাঞ্ছিত , কস্টে দিন যাপন করে সেটার খবর এই কর্পোরেট দুনিয়ায় বসে টের পাওয়া যায় না । অনেকে আবার খাবার সম্পুর্ন না খেয়ে অর্ধেক খেয়ে উঠে যাওয়াটাকে কালচার মনে করেন ।য় না । অনেকে আবার খাবার সম্পুর্ন না খেয়ে অর্ধেক খেয়ে উঠে যাওয়াটাকে কালচার মনে করেন ।

বাংলাদেশে সবচেয়ে কঠিন পেশা কোনটি এবং কেন?

মরন পেশা শিল পাটা খোদাই ও সিমেন্ট শিল্পে শ্রমিক

যারা এই কাজ করেন তাঁরা ফুসফুসের রোগে ভুগেন । পাথর থেকে ধুলি কনা বাতাসে ছরিয়ে পরে। এবং তা আমাদের ফুস্ফুসে ঢুকে পরে। পরে ফুসফুসে তা জমা হতে থাকে এবং এক পর্যায়ে তা সিমেন্ট এর মত শক্ত হয়ে যায়। এক্স রে তা lung consolidation(ফুসফুস শক্ত/জমাট বাধা) দেখায় । আস্তে আস্তে তা পুরো ফুসফুস কে শেষ করে দেয়। অপারেশন করেও এটা ঠিক হবে না কারন এতা পুরো ফুসফুস জুরে আক্রান্ত হয়ে যায়। এটার কনো চিকিৎসা নেই।

প্রত্যক্ষ সেবামূলক পেশা কে বেশি কঠিন মনে হয় আমার কাছে। বাংলাদেশের বেশিরভাগ মধ্যবিত্তই নিকট অতীতে অর্থনীতির ভাল অবস্থার কারণে নিম্নবিত্ত থেকে উন্নীত হয়েছে। মানসিকতার পরিবর্তন এদের ঘটেনি। যারা সেবা পেশায় আছে যেমন পুলিশ, ডাক্তার, নার্স, গ্রাহক সেবা কর্মকর্তা বা ব্যাংকার, তাদেরকে এই হঠাৎ গজিয়ে ওঠা মধ্যবিত্ত শ্রেণী নিজেদের দাস জ্ঞান করে বলেই মনে হয়। এই পেশাগুলোতে সত্যি বলতে মেজাজ নিয়ন্ত্রণ করে কাজ করাটাই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।

তবে পারসোনাল মতামতে যদি নির্দিষ্ট করে বলি তাহলে বলব রিক্সাওয়ালা, কৃষক, বডি গার্ড[ আমি নাইট গার্ড এর কথা বলছিনা]

প্রত্যক্ষ সেবামূলক পেশা কে বেশি কঠিন মনে হয় আমার কাছে। বাংলাদেশের বেশিরভাগ মধ্যবিত্তই নিকট অতীতে অর্থনীতির ভাল অবস্থার কারণে নিম্নবিত্ত থেকে উন্নীত হয়েছে। মানসিকতার পরিবর্তন এদের ঘটেনি। যারা সেবা পেশায় আছে যেমন পুলিশ, ডাক্তার, নার্স, গ্রাহক সেবা কর্মকর্তা বা ব্যাংকার, তাদেরকে এই হঠাৎ গজিয়ে ওঠা মধ্যবিত্ত শ্রেণী নিজেদের দাস জ্ঞান করে বলেই মনে হয়। এই পেশাগুলোতে সত্যি বলতে মেজাজ নিয়ন্ত্রণ করে কাজ করাটাই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।

তবে পারসোনাল মতামতে যদি নির্দিষ্ট করে বলি তাহলে বলব রিক্সাওয়ালা, কৃষক, বডি গার্ড[ আমি নাইট গার্ড এর কথা বলছিনা]

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং