Skip to main content
Question
Wasimul Haque Anis
নতুন তথ্যর সন্ধানে,
Asked a question 4 months ago

বাংলাদেশের কয়টি সার্চ ইঞ্জিন আছে ? এগুলা কি কি ?

কোথায় আপনি?

এই MSB Ask কমিউনিটিতে আপনি যেকোনো প্রশ্ন করতে পারবেন, উত্তর দিতে পারবেন এবং নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারবেন। তাই নতুন হলে সাইনআপ করুন, আর আগেই থেকেই অ্যাকাউন্ট থাকলে লগিন করুন।  

আমার জানা মতে ৩ টি আছে। এগুলো হল

সর্ব প্রথম চালু হয় পিলিকা ২০১৩ সালের ১৪ এপ্রিল। তার পর চরক্রি। তার পর বিডি আমার যদিও বিডি আমার গুগল এর সাহায্য নিয়ে সার্চ দেই। 

আমার জানা মতে বাংলাদেশের দুটো সার্চ ইঞ্জিন আছে। একটা হলো পিপিলিকা। 

২০১৩ সালে চালু হয় পিপীলিকা ডটকম (www.pipilika.com5) নামের একটি সার্চ ইঞ্জিন।

২য় হলো চরকি।এতে আছে বাংলা ভাষায় আট লাখেরও বেশি তথ্য। বর্তমানে এর পরীক্ষামূলক সংস্করণ (বেটা) চলছে।

বিস্তারিত জানতে-https://www.google.com/amp/www.prothomalo.com/amp/technology/article/617539/%25E0%25A6%25AA%25E0%25A6%25BF%25E0%25A6%25AA%25E0%25A7%2580%25E0%25A6%25B2%25E0%25A6%25BF%25E0%25A6%2595%25E0%25A6%25BE-%25E0%25A6%25A5%25E0%25A7%2587%25E0%25A6%2595%25E0%25A7%2587-%25E0%25A6%259A%25E0%25A6%25B0%25E0%25A6%2595%25E0%25A6%25বফ1

বাংলাদেশএ আমার জানামতে দুইটি প্রধান   সার্চ ইঞ্জিন আছে

বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও তথ্যপ্রযুক্তির ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বিনোদন, যোগাযোগ, ব্যাংকিং, কেনাকাটা, অফিস-আদালত সব ক্ষেত্রেই লেগেছে তথ্যপ্রযুক্তির ছোঁয়া। সবাই এখন ঘরে বসেই দ্রুত বিভিন্ন সেবা পেয়ে থাকে। আর বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম মানুষের পারস্পরিক সম্পর্ককে আরও দৃঢ় করেছে। বিংশ শতাব্দীর এই যুগে সারা বিশ্বের মানুষ সার্চ ইঞ্জিনের ওপর নানাভাবে নির্ভরশীল। সার্চ ইঞ্জিন মানুষকে নানা ধরনের তথ্য একেবারে হাতের মুঠোয় দিয়ে জীবনকে সহজ করা দিচ্ছে। ইন্টারনেটের অফুরন্ত তথ্যভাণ্ডার থেকে কাক্সিক্ষত তথ্যটি খুঁজে পেতে সহায়তা করে সার্চ ইঞ্জিন। ফলে সার্চ ইঞ্জিনের ওপর মানুষ পুরোপুরি নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে। বিশ্বে কিছুসংখ্যক সার্চ ইঞ্জিনের ওপর মানুষ নানাভাবে হয়ে পড়ছে নির্ভরশীল। বাংলাদেশের পরিপ্রেক্ষিতে এই দৃশ্যপট কিছুটা ভিন্ন। বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার মাত্র ৬.৫% ইন্টারনেট ব্যবহার করছে (সূত্র : ওয়ার্ল্ড ব্যাংক। তা ছাড়াও পূর্বে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা শহরভিত্তিক হলেও ধীরে ধীরে মোবাইলের মাধ্যমে এর পরিসর বেড়ে শহরের সীমানা ছেড়ে গ্রামীণ এলাকাতে ছড়িয়ে পড়ছে। তবে ইন্টারনেট ব্যবহাকারীরা তখনই এর মূল সুবিধা বোধ করতে পারবেন, যখন তারা তাদের প্রয়োজনীয় সকল তথ্য ইন্টারনেট থেকে পাবেন সহজে এবং প্রতিদিনের কাজসমূহ করতে পারবে। এই প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি তথ্যভিত্তিক সার্চ ইঞ্জিন যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৩ সাল থেকে।

পিপীলিকা (িি.িঢ়রঢ়রষরশধ.পড়স )

বাংলাদেশ থেকে তৈরিকৃত এবং নিয়ন্ত্রিত একটি ইন্টারনেটভিত্তিক অনুসন্ধান ইঞ্জিন। ১৩ এপ্রিল ২০১৩ সালে এটি আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে। এটি বাংলাদেশের প্রথম সার্চ ইঞ্জিন, যেখানে বাংলা এবং ইংরেজী- উভয় ভাষায় তথ্য পাওয়ার সুবিধা রয়েছে। সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালের তত্ত্বাবধানে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ রুহুল আমিনের নেতৃত্বে একদল শিক্ষার্থী তৈরি করেন এই সার্চ ইঞ্জিনটি। সহযোগিতায় ছিল গ্রামীণফোন আইটি। পিপীলিকার রয়েছে নিজস্ব অনুবাধন ব্যবস্থা । বানান ভুল লেখলেও সঠিক উত্তর খুঁজে দেবে পিপীলিকা। পিপীলিকা সংবাদ, ব্লগ, বাংলা উইকিপিডিয়া এবং জাতীয় ই-তথ্যকোষ এ চার ধরনের উৎস থেকে তথ্য উত্থাপন করে থাকে। ভুল বানান সংশোধনের জন্য এতে একটি নিজস্ব বাংলা অভিধান ব্যবহার করা হয়েছে। পিপীলিকা দেশের প্রধান বাংলা ও ইংরেজী পত্রিকার সংবাদ, বাংলা ব্লগ, বাংলা উইকিপিডিয়া ও সরকারী তথ্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিশ্লেষণ ও সংরক্ষণ করে। পিপীলিকা নতুনভাবে ছয়টি সেবা যুক্ত করেছে। এগুলো হলো পিপীলিকা সাম্প্রতিক সংবাদ, পিপীলিকা লাইব্রেরি, পিপীলিকা কেনাকাটা, পিপীলিকা জব সার্চ, বাংলা বানান সংশোধনী ও শব্দকল্পরুম। এদের সবকয়টি এন্ড্রয়েড এ্যাপ হিসেবেও গুগল পে-স্টোরে পাওয়া যাবে।

চরকি (িি.িপযড়ৎশর.পড়স)

বাংলাদেশে তৈরি একটি সার্চ ইঞ্জিন। চরকি যাত্রা শুরু করে ১ মার্চ ২০১৫ সালে। চরকি বাংলাদেশের প্রথম সার্চ ইঞ্জিন যা পণ্য অনুসন্ধান করতে পারে। এর অর্থায়নে আছে, মালয়েশিয়াভিত্তিক ভিসি মাইন্ড ইনিশিয়েটিভ কোম্পানি। এটি ওয়েব অনুসন্ধানের পাশাপাশি পণ্য, খবর এবং খাবার সম্পর্কে তথ্য অনুসন্ধানের সুবিধা দেয়। বাংলা ও ইংরেজী শব্দের মধ্যে পার্থক্য দূর করতে দুই ভাষার জন্য একই ফলাফল দেখানোর পাশাপাশি সংবাদ খোঁজার ক্ষেত্রে ৩০টির বেশি সংবাদভিত্তিক ওয়েবসাইট থেকে প্রায় চার লাখ সংবাদ ও নিবন্ধ এখন চরকি সার্চ ইঞ্জিনে পাওয়া যাচ্ছে এবং এই সংখ্যা

প্রতিদিনই বাড়ছে। এই সার্চ ইঞ্জিনটি চেষ্টা করছে প্রতিটি ফিচারকেই বাংলাদেশের সংস্কৃতি ও ইতিহাসের আলোকে সাজিয়ে তুলতে। বর্তমানে যেসব সার্চ ইঞ্জিন আছে তা সম্পূর্ণরূপে পশ্চিমা দেশের প্রয়োজনীয়তার ওপর ভিত্তি করে তৈরি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বাংলাদেশ থেকে যে কোন ব্যবহারকারী কোন পণ্য সার্চ করলে বেশকিছু সমস্যার সম্মুখীন হয়। যেমনÑ কোন পণ্যের নাম ধরে সার্চ করলে সেই পণ্যটি সম্পর্কে নানা ধরনের তথ্য থাকলেও তা কোথা থেকে কিভাবে ক্রয় করা যাবে, তার কোন বিবরণ পাওয়া যায় না। অনেক সময় যে কোন পণ্য সম্পর্কে তথ্য সার্চ রেজাল্টে পাওয়া গেলেও সঠিকভাবে উপস্থাপিত না হওয়ায় মানুষ এই তথ্যসমূহ খুঁজেই পায় না। আবার কোন কিছু সার্চ করলে তা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেশের বাইরের পণ্য দেখায়, যা আসলে সার্চকারীর কোন কাজেই আসে না।

https://www.pipilika.com/ 5আমার জানামতে এটিই একমাত্র সার্চ ইঞ্জিন