Skip to main content
Md Saddam Hossain
প্রযুক্তি এবং জীবনের ভাবনা
Asked a question 6 months ago

ভালবাসা কাকে বলে?

কোথায় আপনি?

এই MSB Ask কমিউনিটিতে আপনি যেকোনো প্রশ্ন করতে পারবেন, উত্তর দিতে পারবেন এবং নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারবেন। তাই নতুন হলে সাইনআপ করুন, আর আগেই থেকেই অ্যাকাউন্ট থাকলে লগিন করুন।  

ভালোবাসা হচ্ছে মনের অনুভূতির বহিঃ প্রকাশ এবং আবেগকেন্দ্রিক একটি দুর্বলতা।

বিশেষ কোন মানুষের জন্য স্নেহের শক্তিশালী বহিঃপ্রকাশ হচ্ছে ভালোবাসা। যেমন আপনার পছন্দের মানুষের জন্য আপনার যে অনুভূতি কাজ করবে, ঠিক সে অনুভূতি টা অপরিচিত কারো ক্ষেত্রে কাজ করবে না। 

 

তবে ভালোবাসায় কিন্তু গণিত আছে। যেটাকে বলে গোল্ডেন রেশিও।

ভালবাসা কাকে বলে?
Mahmudul Islam
Nothing personal, it’s just business

ভালবাসা কাকে বলে তা সহজভাবে বুঝাতে গেলে বলতে হয় প্রেম এবং ভালবাসার মাঝে পারথক্য কি। 

প্রেম হচ্ছে, ধরুন আপনি বাগানে হাটছেন আর একটা গাছে ফুটন্ত গোলাপ দেখলেন। আপনি বাগান থেকে ফুলটা ছিড়ে নিজের রুমে এনে গ্লাসের পানিতে সংরক্ষণ করলেন। 

আর আপনি বাগানে হাটছেন আর একটা গাছে ফুটন্ত গোলাপ দেখলেন। ফুলটা ছিরলে তা সৌন্দর্য হারাবে এই ভেবে ফুলটি না ছিরে প্রতিদিন অই গাছে পানি দেয়ার নাম হচ্ছে ভালবাসা।

Masuk Sarker Batista
Founder & CEO of MSB Academy

ভালোবাসার কোনো সংজ্ঞা এখনো কেউ বের করতে পারেনি। এটাকে সংজ্ঞা দিয়ে আবদ্ধ করা ঠিক হবে না আসলে। ভালোলাগা ক্ষণিকের জন্য। কিন্তু ভালোবাসা সারা জীবনের জন্য। সম্ভবত কোন মনোবিজ্ঞানী ভালো উত্তর দিতে পারবে আমার চেয়ে । কিন্তু আমি আমার মতামতটা দিলাম।

কাউকে শুধু একটি পলক দেখার জন্য হাজারো অজুহাত বেড় করার নামই ভালবাসা

Mohammad Alif
Digital Marketer | Philosophy Enthusiast

আপনার মস্তিষ্কে বিশেষ হরমন তৈরি করে এমন এক বিশেষ অনুভূতি  

ভালোবাসা একটি মানবিক অনুভূতি এবং আবেগকেন্দ্রিক একটি অভিজ্ঞতা। বিশেষ কোন মানুষের জন্য স্নেহের শক্তিশালী বহিঃপ্রকাশ হচ্ছে ভালোবাসা।

বিভিন্ন বিষয়ের  উপর নির্ভর করে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকম হতে পারে:

  • অ-ভালোবাসা (non-love): এর দ্বারা ভালোবাসার তিনটি অংশের কোনটাই থাকে না, এখানে কোন সংযুক্তি থাকে না, সম্পর্কও থাকে না।
  • পছন্দ/বন্ধুত্ব (liking/friendship): এই ধরনের সম্পর্কে অন্তরঙ্গতা থাকে, কিন্তু আগ্রহ ও প্রতিশ্রুতি থাকে না। বন্ধুত্ব এবং পরিচিতদের (acquaintance) সাথে সম্পর্ক এরকম হয়।
  • মোহাবিষ্ট ভালোবাসা (infatuated love):মোহাবিষ্ট ভালোবাসা হচ্ছে সেই ভালোবাসা যেখানে আগ্রহ (passion) থাকে, কিন্তু অন্তরঙ্গতা বা প্রতিশ্রুতি থাকে না। একে "পাপি লাভ"-ও বলা হয় যার অর্থ হচ্ছে, সেই সম্পর্ক যা এখনও পর্যন্ত আন্তরিক (serious) হয় নি। প্রেমপূর্ণ সম্পর্ক প্রায়ই মোহাবিষ্ট ভালোবাসার মধ্য দিয়ে শুরু হয় এবং এরপর সময়ের সাথে সাথে অন্তরঙ্গতা বৃদ্ধির সাথে সাথে তা প্রেমপূর্ণ ভালোবাসায় (romantic love) পরিণত হতে শুরু করে। অন্তরঙ্গতা এবং প্রতিশ্রুতি তৈরি না হলে মোহাবিষ্ট ভালোবাসা হঠাৎ করেই উধাও হয়ে যেতে পারে।
  • শূন্য ভালোবাসা (empty love): শূন্য ভালোবাসা তখনই হয় যখন সম্পর্কে কেবল প্রতিশ্রুতি থাকে, কিন্তু কোন আগ্রহ বা অন্তরঙ্গতা না থাকে। একটি শক্তিশালী ভালোবাসা ক্ষয় হতে হতে শূন্য ভালোবাসায় পরিণত হতে পারে। একটি ব্যবস্থাপিত বিবাহে (arranged marriage) স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক শূন্য ভালোবাসার মধ্য দিয়ে শুরু হয়, এবং এরপর এটি অন্য আকার ধারণ করা শুরু করে।
  • প্রেমপূর্ণ ভালোবাসা (romantic love): এই ভালোবাসায় আগ্রহ এবং অন্তরঙ্গতা থাকে, কিন্তু কোন প্রতিশ্রুতি থাকে না। রোমান্টিক সম্পর্ক বা ওয়ান-নাইট স্ট্যান্ডের বেলায় এরকমটা দেখা যায়।
  • দরদী ভালোবাসা (compassionate love): এই ভালোবাসা অন্তরঙ্গতাপূর্ণ, অ-আগ্রহপূর্ণ ধরনের হয়, কিন্তু বন্ধুত্বের চেয়ে শক্তিশালী হয়, কারণ এখানে দীর্ঘমেয়াদী প্রতিশ্রুতি জড়িত থাকে। "এধরণের ভালোবাসা দীর্ঘমেয়াদী বৈবাহিক সম্পর্কে পাওয়া যায় যেখানে আগ্রহ (passion) আর উপস্থিত থাকে না"
  • জড়ধী ভালোবাসা (fatuous love): হুট করে হওয়া ভালোবাসা বা বিবাহে এটা দেখা যায়। এখানে আগ্রহ থাকে, প্রতিশ্রুতি থাকে কিন্তু অন্তরঙ্গতা থাকে না। যেমন: "প্রথম দেখায় ভালোবাসা"।
  • সুসম্পূর্ণ ভালোবাসা (consummate love): এটি ভালোবাসার একটি সম্পূর্ণা আকার, এবং এটি আদর্শ ভালোবাসাকে প্রতিনিধিত্ব করে। স্টার্নবার্গের মতে, এরকম ভালোবাসা যে জুটির মধ্যে থাকে তারা ১৫ বছর বা তারও বেশি সময় ধরে অনেক ভাল যৌনতা উপভোগ করেন। তারা অন্য কারও সাথে দীর্ঘমেয়াদে ভাল সম্পর্কের কথা ভাবতে পারেন না, সম্পর্কে কোন বাঁধা-বিপত্তি আসলে তারা খুব ভালভাবে সেগুলো কাটিয়ে ওঠেন, এবং তারা একে অপরকে নিয়ে খুশি থাকেন।
ভালবাসা কাকে বলে?

আমার জানা মতে সংজ্ঞা একেক জনের কাছে এক এক রকম। যেমন কারো কাছে ভালোবাসা মানেঃ প্রিয় মানুষের সাথে ঘুরতে যাওয়া। বা কাছে একে অপর কে সন্মান করা। কারো কাছে অপরাধী গান শোনা। ইত্যাদি। তাই সংজ্ঞা সবার কাছে আলাদা। 

তবে এক জাইগায় সবাই একটু একমত ভালোবাসা মানে একে অন্নের সন্মান করা, যত্ন নাওয়া, তার কষ্ট গুলো নিজের ভাবা বা তার সুখে নিজের সুখ। অন্য কারো ভিতরে নিজেকে খুজে পাওয়ার নামই ভালবাসা।

তবে ভালবাসা যে কোন মানুষের সাথে হতে পারে। যেমন মা, বাবা, কোন বড় বেক্তি ইত্যাদি। 

যখন একজন মা তার বাচ্চাদের হাসি দেখার জন্য, বাচ্চাদের কষ্ট থেকে মুক্তির জন্য ক্ষিধে মেটায়, যখন তার নিজের অংশের খাবারটুকু 'আমি ক্ষুধার্ত নই' বলে বাচ্চাদের মুখে তুলে দেয়, যদিও সে জানে যে, তার আর খাবার কিছু নেই!

এটা ভালোবাসা!

যখন একজন বাবা তার সন্তানের সকল ইচ্ছে পূরণের জন্য, সন্তানের মুখে হাসি দেখার জন্য দিন রাত এক করে কাজ করে, যদিও সে নিজের জন্য কখনো এই সুখ নিতে চায় নি!

এটা ভালোবাসা!

যখন আপনি মায়ের কাছ থেকে কোনো ভুলের জন্য কথা শুনছেন, তখন আপনার বোন আপনার মাকে বোঝানোর দায়িত্ব নেয়! যদিও সে নিজেও পরে আপনাকে কথা শুনিয়ে যাবে!

এটা ভালোবাসা!

যখন আপনার ছোটভাই ইচ্ছে করেই তার শত্রুদের সামনে গিয়ে ঝগড়া তৈরি করে, কারণ সে জানে আপনি তাকে বাঁচাতে আসবেন! যদিও আপনি কোনোদিনও ঝগড়া করেন নি!

এটা ভালোবাসা!

যখন আপনার স্ত্রী সারাদিন-রাত কাজ করার পর, রাতের খাবার নিয়ে আপনার অফস থেকে ফেরার অপেক্ষায় বসে থাকে, না খেয়ে! যদিও ক্ষিধেয় তার শরীর খারাপ হয়ে আসছে!

এটা ভালোবাসা!

যখন একজন সৈনিক তার পরিবারের মায়া-মমতা, ছোট বাচ্চার হাসি আর মায়ের চেহারাকে দূরে ঠেলে রেখে দেশের জন্য বর্ডারে পা রাখে! যদিও সে আর এই মায়াময় পরিবাতে ফেরত নাও আসতে পারে!

এটা ভালোবাসা!

যখন একজন মানুষ একা একাই ২০ বছর ধরে গাছ রোপন করে যাচ্ছে, কার জন্য অপেক্ষা না করেই, শুধুমাত্র প্রকৃতিকে সুন্দর দেখার জন্য! যদিও সে জানে তার গাছই আবার কাটা পড়বে!

এটা ভালবাসা!

যখন একটা ভিক্ষুক, নিজে খেতে না পেরে, তার সারাদিনের জমানো খাবারটাও রাস্তার ধারের কুকুরের মুখে তুলে দেয়! যদিও সে জানে তার কাছে আর কোনো খাবার অবশিষ্ট নেই!

এটা ভালোবাসা!

যখন দেশের প্রত্যেকটা মানুষ দেশকে ভেতর থেকে নষ্ট করে যাচ্ছে, সেখানে একদল মানুষ দেশের জন্য লড়াই করে যাচ্ছে, দেশকে সুন্দর আর পরিষ্কার রাখার লক্ষ্যে! যদিও তারা জানে যে, এই সৌন্দর্য আবার নষ্ট হয়ে যাবে!

এটা ভালোবাসা!

যখন একজন খেলোয়ার তার জীবনের শ্বাস-প্রশ্বাস থেকে শুরু করে সবকিছুতেই শুধুমাত্র দেশের জন্য খেলার মাঠে লড়াই করেছে! যদিও সে জানে না যে, তার স্বপ্ন পূরণ হবে কি না!

এটা ভালোবাসা!

যখন আপনার বিড়াল আপনার জন্য সারাদিন অপেক্ষা করে থাকে, কখন আপনি কাজ থেকে ফিরবেন! ফিরলেই এসে জড়িয়ে ধরে আপনাকে! যদিও সে জানে না আপনি তাকে আদৌ ভালোবাসেন কি না!

এটা ভালোবাস!

যখন একজন লেখক তার কলমের খোঁচায় সোডিয়াম রঙের কাগজে নিজের ইচ্ছেটাকে প্রকাশ করে! যদিও সে জানে না সেই লেখার মূল্য কতটা!

এটা ভালোবাসা!

যখন একটা ছেলে সারারাত কেঁদে দিনের বেলায় হাসিমুখে মেয়েটাকে অন্য কোনো ছেলের হাতে তুলে দেয়! যদিও তার চিৎকার করে কাঁদতে ইচ্ছে করছে!

এটা ভালোবাসা!

যখন একটা মেয়ে জীবনে প্রথমবার তার নিজের কমফোর্ট জোন থেকে বের হয়ে এসেছে, কিন্তু এসে দেখে ছেলেটা অন্য কারো কাঁধে মাথা দিয়ে রেখেছে! যদিও তার বুক ফেটে কান্না আসছে!

এটা ভালোবাসা!

ভালোবাসা কি জিজ্ঞেস করেছিলেন না?

আমার কাছে এগুলোই ভালোবাসা!

ভালোবাসা এমন একটা শব্দ যেটা শাব্দিক বেড়াজালের বাইরে, অনেক বাইরে!

হাজার আলোকবর্ষদূরে থাকলেও যার কিংবা যেটার কিংবা যে স্থান কিংবা যে সময়ের জন্য আপনার ঠোঁটে মুচকি হাসি আর চোখের কোনায় অশ্রু কনা জমতে পারে, একইসাথে; সেটাই ভালোবাসা!

কেউ দেখায়, কেউ দেখায় না! কেউ বোঝায়, কেউ বোঝায় না! কেউ চায়, কেউ চায় না! ভালোবাসা তো একই পয়সার দুটো দিকে মতো! যার একদিকে থাকে আবেগ, অন্যদিকে বাস্তবতা! যার একদিকে থাকে কান্না, অন্যদিকে হাসি! যার একদিকে থাকে সুখ, অন্যদিকে দুঃখ! যার একদিকে থাকে ভালোবাসা, অন্যদিকে ঘৃণা!

আমার কাছে ভালোবাসা হচ্ছে অন্য রকম অুভুতি যা সবার জন্য সমান না ।শত ব্যস্ততার মাঝে তার কথা ঠিকই মনে পরা ।

ভালবাসা হচ্ছে একটি মানবিক অনুভূতি এবং আবেগকেন্দ্রিক অভিজ্ঞতা।