Skip to main content
Asked a question 4 months ago

দিনের কোন সময়টা ব্যায়াম করার জন্য উপযুক্ত?এবং কেন?

কোথায় আপনি?

এই MSB Ask কমিউনিটিতে আপনি যেকোনো প্রশ্ন করতে পারবেন, উত্তর দিতে পারবেন এবং নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারবেন। তাই নতুন হলে সাইনআপ করুন, আর আগেই থেকেই অ্যাকাউন্ট থাকলে লগিন করুন।  

ব্যায়াম করার বেস্ট সময় হল সকাল। এর মুল কারণ সকালে ব্যায়াম আপনার শরীর এর  দিন শেষে স্বাস্থ্যকর এক ধরণের ক্লান্তি এবং স্ট্রেস দেয় যার যার ফলে গভীর এবং আরও ভাল ঘুম হয়। এছাড়াও, সকালের ব্যায়ামগুলি কেবল আপনার ঘুমের মানের উপর প্রভাব ফেলে না, এটি আপনাকে আরও দীর্ঘায়িত করতে সহায়তা করে। আরও অনেক ফ্যাক্ট আছে সকল জাইগাই বলা আছে সকালের ব্যায়াম করা বেস্ট হবে। 

Wasimul Haque Anis
নতুন তথ্যর সন্ধানে,

এ বি এম আবদুল্লাহর মতেঃ 

 সকালে ঘুম থেকে উঠেই ব্যায়াম করা যেতে পারে। দীর্ঘ সময় ঘুমের পর সকালে ব্যায়াম সারা দিন ফুরফুরে রাখতে পারে।
 এ ছাড়া সন্ধ্যার আগে বিকেলটাও ব্যায়াম করার জন্য উপযুক্ত সময়। যেহেতু ব্যায়াম করলে শরীরের ঘাম ঝরে, তাই নরম আবহাওয়াতেই ব্যায়াম করা ভালো।
 দুপুরবেলা বা বেশি গরমে ব্যায়াম করলে সহজেই ক্লান্ত মনে হতে পারে। তাই এ সময়ে ব্যায়াম না করাই ভালো।
 অনেকে ব্যস্ততার জন্য সারা দিন সময় করে উঠতে পারেন না, তাঁরা রাতে ব্যায়াম করেন। এতে কোনো সমস্যা নেই।
 যাঁরা সারা দিন বাসায় থাকেন, তাঁরা চাইলে যেকোনো সময় ব্যায়াম করতে পারেন।
 ব্যায়ামের সময় অনেক বেশি খাবার খাওয়া ঠিক নয়। হালকা খাবার যেমন, একটা কলা বা বিস্কুট খেয়ে ব্যায়াম করলে উপকার পাওয়া যাবে।
 সকালে ব্যায়াম করতে গিয়ে অনেকে ব্যায়াম শেষে ভরপেট খেয়ে বাসায় ফেরেন। এতে ব্যায়ামের কোনো উপকারিতা থাকে না।
 যাঁরা নিয়মিত ব্যায়াম করেন, তাঁরা বেশি দিনের অবসর কাটালে বা কোথাও ঘুরতে গেলে খাবারের দিকে নজর রাখা উচিত। ঘুরতে গিয়ে বেশি দিন থাকার পরিকল্পনা করলে সুযোগ থাকলে টুকটাক ব্যায়াম করা যেতে পারে।
 ব্যায়াম করার আগে বা পরপরই বেশি পরিমাণে পানি খাওয়া ঠিক নয়। ব্যায়ামের পর একটু বিশ্রাম নিয়ে তারপর পানি খেতে পারেন।
 খাবারের মেন্যু থেকে যতটা সম্ভব মিষ্টি, কোমলপানীয়, ফাস্টফুড ইত্যাদি খাবার বাদ রাখাই ভালো। কারণ, এসব খাবার খেলে আপনার ব্যায়াম করা বৃথা হয়ে পড়বে।
 নিজে অসুস্থ থাকলে ব্যায়াম করার দরকার নেই। বিশেষ করে গর্ভকালীন চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনো ব্যায়াম করা উচিত নয়।
 যেকোনো ধরনের ব্যায়াম বা ডায়েট পরিকল্পনার জন্য চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে নেওয়া উচিত।

দেখুন এই প্রশ্নের উত্তর এখেক জন এখেক রকম দেন৷ কিন্তু অনেক অভিজ্ঞতা ও বিস্তর চিন্তাভাবনার পর এর উত্তর দিচ্ছি-

আপনি যেকোনো সময় ব্যায়াম করতে পারেন, আপনার রুটিন এর ভিত্তিতে ব্যায়াম করার টাইম নির্ধারিত করুন। তবে প্রতিদিন একই টাইমে করতে হবে।

অনেকেই সকালের কথা বলে। কিন্তু মনে করুন রোজার মধ্যে আপনি ব্যায়াম করবেন। আপনি তখন সকালে করতে পারবেন না।

কিন্তু বাকি এগারো মাস আপনি সকালে করতে পারেন কারণ তখন বডিতে ইন্সুলিন এর মাত্রা কম থাকায় চর্বি একটু বেশি কাটে।

আবার ধরুন আপনি জিম বা ওয়েট ট্রেনিং করেন। তো তখন আপনি সকালে ব্যায়াম করতে কষ্ট হবে কারণ শরীরে ক্যালোরি কম থাকে। তাই যারা জিম বা ওয়েট ট্রেনিং করেন তারা বিকালে, দুপুরে অথবা রাতে ব্যায়াম করেন।

 

সবশেষে বলব, আপনার রূটিনের সুবিধা মতো একই টাইমে ব্যায়াম করুন। তাহলেই ভালো ফল পাবেন। 

ধন্যবাদ। 

সকালে