Skip to main content
Wasimul Haque Anis
নতুন তথ্যর সন্ধানে,
Asked a question 4 months ago

ই-সিগারেট কী? এবং এটি কীভাবে সিগারেটর তুলনায় শরীরের জন্য কম ক্ষতিকর?

কোথায় আপনি?

এই MSB Ask কমিউনিটিতে আপনি যেকোনো প্রশ্ন করতে পারবেন, উত্তর দিতে পারবেন এবং নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারবেন। তাই নতুন হলে সাইনআপ করুন, আর আগেই থেকেই অ্যাকাউন্ট থাকলে লগিন করুন।  

ই সিগারেট হলো ইলেজট্রনিক্স সিগারেট। সহজ ভাষায় বললে এটা ব্যটারি চালিত সিগারেট। 

কিন্তু এটা এটা সিগারেটের তুলনায় কম ক্ষতিকর এই কথাটা ভুল।ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসার উন্নতির জন্য অনেক সময়ই প্রচারণা চালান যে, ই-সিগারেট কম ক্ষতিকর কিংবা এটি নেশায় অাসক্তি কমাতে সাহায্য করে। কিন্তু গবেষণা বলছে, এই ইলেকট্রিক সিগারেট স্বাস্থ্যের জন্য মোটেও নিরাপদ নয়। মাদক এবং সিগারেটের মতোই আসক্তি হয়ে যায়। শুধু তাই নয়, ট্র্যাডিশনাল সিগারেটের মতো ইলেকট্রিক সিগারেট থেকে হতে পারে ক্যান্সার। তার কারণ, এই ইলেকট্রিক সিগারেটের তরলেও রয়েছে নিকোটিন। ক্রমাগত শরীরে ঢুকতে থাকা এই তরল নিকোটিন কিন্তু সিগারেটের মতোই আপনাকে নেশাগ্রস্ত করে ফেলতে পারে। যদিও, সিগারেটের মতো তামাক থাকে না এই সিগারেটে। নিকোটিন মিশ্রিত তরলই বাষ্পাকারে বেরিয়ে আসে। ধূমপায়ীরা ও নেশাসক্তরা সিগারেটেরই স্বাদ পান এই ইলেকট্রিক স্মোকিংয়ে। গবেষকরা মনে করছেন, এই তরলে আসক্তি আরও বেশি। যা ভবিষ্যতে ফের ধূমপান বা অন্য কোনো নেশার দিকে আপনাকে টেনে নিয়ে যেতে পারে। মূলত তিন ধরনের ফর্মে নিকোটিন থাকে। তার মধ্যে ফ্রি-বেস নিকোটিনই শরীর শোষণ করে। আর এই ফ্রি-বেস নিকোটিনই নেশায় পুনরায় আসক্তি আনতে পারে।

তাই এই ইলেকট্রিক সিগারেট কে কোনোভাবেই কম ক্ষতিকর বলা যাচ্ছে না।