Skip to main content
Question
Asked a question last year

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

কোথায় আপনি?

এই MSB Ask কমিউনিটিতে আপনি যেকোনো প্রশ্ন করতে পারবেন, উত্তর দিতে পারবেন এবং নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারবেন। তাই নতুন হলে সাইনআপ করুন, আর আগেই থেকেই অ্যাকাউন্ট থাকলে লগিন করুন।  

payoneer হল ডিজিটাল পেমেন্ত মাধ্যম। যা বাংলাদেশে অনেক পুপলার এখন। মুলত আপনি 

  • payonner ব্যবহার করে আপনি ব্যাংক থেকে টাকা উঠাতে পারবেন।
  • payonner ই-ওয়ালেট এ টাকা রাখতে পারবেন।
  • তাদের মাস্টার কার্ড এর সুবিধা নিতে পারবেন।
  • যে কোন প্রকার টাকা payonner রিসিভ এন্ড পেমেন্ট।

এগুলোই মূলত সুবিদা। তবে বাংলাদেশে মানুষ payoneer ব্যবহার করে পেপাল ব্যবহার করার জন্য। আর payoneer যেহুত বাংলাদেশে লিগ্যাল তাই যে কোন ব্যাংক থেকে টাকা উঠাতে পারবেন। তবে উল্লখ একটি ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে একটির বেশি payoneer অ্যাকাউন্ট খুলা যাই না। আর আপানার আইডি ব্যান হলে আপনি সেই আইডি দিয়ে আর payoneer অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন না। 

payoneer অ্যাকাউন্ট খুলার জন্য কিছু আলদা নিয়ম আছে বিজনেসের জন্য এক ভাবে আবার সাধারণ কাজের জন্য জন্য আলাদা। যা যা লাগবে। 

  • আপনার নাম NID বা পাসপোর্ট অনুযায়ী দিতে হবে কারন পরে আপনাকে আপনার NID ও পাসপোর্ট এর কপি ভেরিফাই করার জন্য আপলোড করতে হবে। আপনার জন্ম এর তারিখ ঠিক ভাবে লিখবেন যাতে কোন প্রকার ভুল না হয়।
  • আপনি যেখানে থাকেন সেই  ঠিকানা দিন। আপনার ঠিকানা ভেরিফাই করার জন্য Bank Statement বা বিলের পেপার বা ট্যাক্স এর কাগজ এর যেকোনো একটি আপলোড করতে হবে। তবে মনে রাখবেন, আপনি যেই ঠিকানা দিবেন সেই ঠিকানাই কিন্তু আপনার Payoneer মাস্টার কার্ড যাবে।
  • এর পর  একাউন্ট খুলতে  আপনাকে তিনটি Security Question করা হবে যাতে কখনো যদি আপনি আপনার একাউন্ট এর আইডি বা পাসওয়ার্ড ভুলে যান তাহলে সেই ৩ তা  Security Question এর প্রশ্নের উত্তর দিতে পারলে আপনি আপনার একাউন্ট আবার ফিরে ব্যবহার করতে পারেন।
  • একাউন্ট ওপেন করার পর ই আপনে নিজের নামে মাস্টারকার্ড নাওয়ার  জন্য রিকোয়েস্ট করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে টাকা দিতে হবে না। আপনি আপনার একাউন্টে ঢুকে করে অ্যাপ্লাই করতে পারেন। আরও জানতে পারেন এই ভিডিওতেঁ।
https://youtu.be/1TiGifZGT-o

 

 

এই আর্টিকেলটি পড়ুন-  https://www.techtunes.co/outsourcing/tune-id/39673344

অথবা- https://www.mdfarukkhan.com/bangla/payoneer-master-card/21

এই ভিডিওটা দেখতে পারেন-  

https://youtu.be/QLcg9oEzbvo

সুবিধা

1.বিভিন্ন Affiliate Network থেকে টাকা উঠাতে পারবেন।

2.পেইওনিয়ার কার্ডে অনলাইন শপিং করতে পারেন।

3.কাছাকাছি যে কোনও এটিএম থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

4.ব্যাংক অ্যাকাউন্টের দরকার নেই

5.অনলাইনে অর্থ গ্রহণের দ্রুততম উপায়

6.সাইন আপ করার জন্য 25 ডলার পান:

Payoneer রেফারাল সিস্টেম সরবরাহ করে যাতে আপনি যদি সেই লিঙ্কটির সাথে যোগ দেন তবে আপনি নিজের অ্যাকাউন্টের জন্য বিনামূল্যে $ 25 পেতে পারেন পাশাপাশি রেফারারও তাদের অ্যাকাউন্টে একই পরিমাণ পান। আপনি যদি কোনও রেফারেল লিঙ্ক না দিয়ে সরাসরি payoneer এ যোগ দেন তবে আপনি কিছুই পাবেন না। সুতরাং, আমার লিঙ্ক পেওনার ব্যবহার করে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন  ।

অসুবিধা:1.পেওনেরের কম ফরেক্স রেট রয়েছে যার অর্থ মুদ্রা রূপান্তরের ব্যয় বেশি। মার্কিন ডলার থেকে আপনার স্থানীয় মুদ্রায় রূপান্তর করার সময় এগুলি উচ্চ পরিমাণে অর্থ হ্রাস করে।

2.একটা প্রশ্নের ফিডব্যাক পেতে দুদিনের বেশি সময় লাগে

3.টাকা উত্তোলনের জন্য কমপক্ষে 100USD দরকার।

 

১. পেওনিয়ার করার জন্য এখানে >> ক্লিক 17

২য় ধাপ

২. এমন একটি স্ক্রিন আপনার সামনে আসবে, এখান থেকে আপনি সাইন-আপ (Sign Up) এ ক্লিক করুন।

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

৩য় ধাপ

৩. এবার আপনি এই ফর্মটি পূরণ করুন। মনে রাখবেন, আপনি একজন ব্যক্তি হিসেবে এ্যাকাউন্ট করছেন, কোম্পানি হিসেবে নয়।

আপনার নাম এবং জন্ম তারিখ অবশ্যই আপনার ভোটার আইডি বা ড্রাইভিং লাইসেন্স বা পাসপোর্ট (যে কোনো একটি) এর হুবহু মিল রেখে করতে হবে।

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

৪র্থ ধাপ

৪. এখানে আপনি এমন একটি ঠিকানা ব্যবহার করবেন যেখানে চিঠি সঠিকভাবে পৌছাবে। কারন, এই ঠিকনাতেই আপনার কার্ডটি আসবে।

আপনার নিজের মোবাইল নাম্বারটি এখানে ব্যবহার করুন। 

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

৫ম ধাপ

৫. এখানে আপনি এ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড এবং একটি সিকিউরিটি প্রশ্ন সেট করবেন। এরপর আপনার ভোটার আইডি বা ড্রাইভিং লাইসেন্স বা পাসপোর্ট (যে কোনো একটি) এর নম্বার দিন এবং এটি কোন দেশের জন্য প্রযোজ্য সেই দেশের নাম লিখুন। 

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

 

৬. অভিনন্দন! আপনি সঠিক ভাবে পেওনিয়ার কার্ডের জন্য এ্যাপ্লিকেশন করতে পেরেছেন।

এবার আপনার এ্যাপ্লিকেশনটি পেওনিয়ার টিম রিভিউ করবে এবং আপনাকে কিছুদিনের মধ্যেই অনুমোদন দিয়ে একটি ইমেইল করবে।

 

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

এরকম একটি ইমেইল আপনি পেওনিয়ার থেকে পাবেন, এ্যাকাউন্ট করা সম্পন্ন হয়ে গেলে।
 

*** টিপস: অনেক সময় পেওনিয়ার এর ইমেইলগুলি ইনবক্সে আসে না, তাই আপনি ইমেইল না পেলে স্প্যাম (Spam) এ চেক করে দেখুন ***
 

আসুন আমরা এবার আমাদের তৈরি করা এ্যাকাউন্টে প্রথম বার প্রবেশ করি।

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

আপনি এ্যাকাউন্টে লগ-ইন (Login) করার জন্য এখানে ক্লিক করুন14 বা সরাসরি পেওনিয়ারের ওয়েবসাইট এ ভিজিট করুন।

এখানে আপনি আপনার সঠিক ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ-ইন করুন।

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

এখন আপনি আপনার এ্যাকাউন্টের সিকিউরিটি বৃদ্ধির জন্য আরো দুটি সিকিউরিটি প্রশ্ন সেট করবেন। মনে রাখবেন, এই প্রশ্নের সঠিক উত্তর আপনাকে মনে রাখতে হবে।

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

এটি হচ্ছে আপনার পেওনিয়ার এ্যাকাউন্ট, যেটি প্রাথমিক অবস্থায় রিভিউতে রয়েছে।

এভাবে ৪-৫টি কর্মদিবস পরে আপনার কাছে এ্যাকাউন্ট সম্মতি (Approval) একটি ইমেইল আসবে। আপনি তখন বুঝতে পারবেন যে, আপনার এ্যাকাউন্টটি পে​ওনিয়ার অনুমোদন দিয়েছে।
 

payonner সম্পর্কে জানতে চাই। কিভাবে একাউন্ট খুলবো সুবিধা অসুবিধা জানতে চাই?

আগে বাংলাদেশ থেকে এ্যাকাউন্ট অনুমোদন দিলেই আপনার জন্য একটি মাষ্টার কার্ড পাঠিয়ে দেয়া হতো। কিন্তু বর্তমানে আর আপনি এই সুবিধা পাবেন না।

পেওনিয়ার প্রিপেইড (মাষ্টারকার্ড) পেমেন্ট মেথড বর্তমানে একজন বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সার (Freelancer) এর জন্য এটি অপরিহার্য একটি বিষয়।

কেন ?

আপনি একজন প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সার হিসেবে যখন জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্স  মার্কেটপ্লেস গুলিতে কাজ করবেন এবং এই কাজের পারিশ্রমিক যা পাবেন সেই টাকা বাংলাদেশ থেকে পেতে হলে আপনাকে এমনই একটি অনলাইন ব্যাংকিং সেবা নিতে হবে।

আপনি খুব সহজেই আপনার অর্জিত টাকা বাংলাদেশ থেকে এই কার্ডের সাহায্যে উত্তোলন করতে পারবেন। শুধু তাই নয়, আপনি আপনার অনলাইনের বিভিন্ন কেনা-কাটা, সেবা গ্রহনে এটি ব্যবহার করতে পারবেন